প্রয়াত কবি আমজাদ হোসেন মাস্টার

রবিবার, নভেম্বর ৫, ২০১৭ ৩:৩২ অপরাহ্ণ
Share Button

সাহিত্যপুরীঃ লালমনিরহাট জেলার অন্যতম কবি, উত্তরাঞ্চলের সাহিত্যের অভিভাবক, গুণি কবি আমজাদ হোসেন মাষ্টার ২৬ অক্টোবর ২০১৭ইং, বৃহস্পতিবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সকলের মায়া ত্যাগকরে পরলোকে পারি জমিয়েছেন।

কবি আমজাদ হোসেন মাস্টার ১৯৪৩ সালের ১০ জুলাই সিরাজগঞ্জের কাজিপুর থানার চরকাজিপুর পাঁচআনি পাড়ায় এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। ১৯৫৭ সালে লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলাধীন ৭নং চলবলা ইউনিয়নের নিথক শিয়ালখোওয়া গ্রামে স্ব-পরিবারে চলে আসেন এবং অদ্যবদি বসবাস করে আসছেন।

তিনি তার জীবনকালে অনেক উপন্যাস, গল্প ও কাব্যগ্রন্থ রচনা করেছেন । তিনি ছিলেন একজন সৃষ্টিশীল এবং আধ্যাত্মিক চেতনার কবি। আধ্যাত্মিক চেতনাকে লালন করে কবি লিখেছেন ঘাটপাড়ের সমাধি এবং মানুষ না খোদা নামক দুটি কাব্যগ্রন্থ। নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়ার মত তিনিও ভাবতেন নারীর মর্যাদা ও সম্মান নিয়ে। “নারী স্বর্গ নারীই নরক” তারই অনন্যসৃষ্টি। গল্পে কবির হাত ছিল বেশ পাকা। শুধু আধ্যাত্মিক ও দ্রোহের নয়, তিনি একজন প্রেমের কবিও বটে। তিনি তার গল্প ও উপন্যাসের মাধ্যমে পল্লী সমাজের নানা অসঙ্গতিসহ দুঃখ, কষ্ট, বেদনা, হাসি-আনন্দ, প্রেম, দ্রোহ খুব সুন্দরভাবে চিত্রায়িত করেছেন। নূরজাহান, ভালোবেসে কেন দুরে চলে গেলে, অভাগিনী, প্রেমের পরিনতি, কেন প্রেম দিলে, ভালো যদি বাস সখি, প্রেম কেন কাঁদে কাব্যগ্রন্থগুলো পাঠকমহলে বেশ সমাদৃত হয়। কবি শেষ বয়সে লিখে রেখে যান বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিবেদিত “স্মরণযোগ্য শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী শেখ মুজিবুর রহমান”। তিনি সাহিত্যের প্রদীপ হয়ে জ্বলে থাকবেন প্রতিটি পাঠকের হৃদয়ের গহীনে।

Share Button