চারা।। রুমকি আনোয়ার

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৩, ২০১৭ ২:৪৩ অপরাহ্ণ
Share Button

মৃতের পেট চিরে বেরিয়ে আসে কবিতা
আগুন জ্বালাও আমার বুকে, আগুন জ্বালাও
বিষণ্ণ বর্নমালায় রক্ত কি ঝরাতে শিখনি ?
যত পাপ তত শোক বলে কিছু নেই,
আমি গিলে ফেলি চন্দ্র, সূর্য, গ্রহ, তারা
বড় ক্ষিদে আমার, বড় ক্ষিদে ।
মৃতের ঘি চন্দন আমার নাসারন্ধ্রে , মসজিদ, মন্দির
সেও আমার হৃদপিণ্ডে, তবুও সীমাহীন হাহাকার আকসার
কিসের শুদ্ধাচার রমণীর বস্ত্রহরন , কামুক পুরুষ দর্শন
শকুনীর হাসি সব লেগে আছে পিঠে
তোমাদের পীড়িত হাত পারে নি
আমার সিঁড়ি ডিঙতে ।
হৃদয়ে রক্তক্ষরন না থাকলে কেবল শুষ্ক জলধারায়
কি ছবি আঁকবে তোমরা আমার বুকে ?
অন্তর্গত সংলাপগুলো গিলে খায় অন্নপ্রাসনে কিংবা
আতুর ঘরে মৃতবৎসা , শৈবালদাম ,
আজও জানা নেই তোমাদের কলম থেকে রক্ত চুষে নিলে
তার দেনা শোধ করতে হয় শব্দের উৎসবে ।
বর্ণচোরা কাঁটাচোরা মুসাফির
কেবল অগ্নিতেই নিহিত আমি ।
প্রেম প্রেম বলে যতই চেঁচাও ,প্রেম বলে কিছু নেই
শব্দের তীক্ষ্ণ বর্শাফলক
আমার কপাল ভেদ করে যাক
তবেই আমি কবিতা ।
আমাকে প্রকাশিত করতে না পারলে
কেবল ই বর্ণমালা , এভাবে উলঙ্গ আমায় নাই বা করলে ।।

Share Button