চোরাবালি।। ডিকন হাজরা

চোরাবালির মধ্যে আমার রক্তমাখা শরীর ডুবিয়ে দেই,

সে কেবল আমার শরীরে লেগে থাকা রক্তই শুষে নেয়!

আমি হতাশ হই না, আবার হিংস্র রুপ ধারণ করে নেকড়ে সাজি;

কোনো নিঃস্ব বিবশ কাউকে পেলেই তার বুক চিরে রক্ত মাখি!

সেই নিশ্পাপ রক্তে আমার শরীরে লাভার উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ে।

আমি প্রাণপনে ছুটতে থাকি, বিবেকের জ্বালা আমায় তাড়িত করে,

পথিমধ্যে আমার তৃষ্ণা পায়, একবিন্দু পানির আশায় হাহাকার করি!

কিন্তু এই নিষ্ঠুর পথ চলায় আমাকে দয়া করার কেউ নেই,

মৃত্যু যেন তখন ঘাসের উপরে দোদুল্যমান শিশির বিন্দু!।

তবুও আমায় পথ চলতে হবে,

কারণ আমার পিছনেই যে ছুটে আসছে-

ক্রোধ ও আগুনের লেলিহান শিখা হাতে অজস্র ক্রুদ্ধ সংঘাত।

অথচ ইতিমধ্যেই আমার সকল শরীরি ক্ষমতা নিঃশ্বেষ হয়েছে,

আমি কেবল এক সমুদ্র অশ্রু চোখে দিগন্তপানে সাহায্যের আসায় বসে আছি;

শুনতে পাচ্ছি প্রাগৈতিহাসিক অট্টহাসি ক্রমশো এগিয়ে আসছে!

ক্লান্তিতে আমার চোখ বুজে আসে, অনুভব হয় তলিয়ে যাচ্ছি চোরাবালির নিগূঢ়ে!।

চোরাবালি।। ডিকন হাজরা

চোরাবালির মধ্যে আমার রক্তমাখা শরীর ডুবিয়ে দেই,

সে কেবল আমার শরীরে লেগে থাকা রক্তই শুষে নেয়!

আমি হতাশ হই না, আবার হিংস্র রুপ ধারণ করে নেকড়ে সাজি;

কোনো নিঃস্ব বিবশ কাউকে পেলেই তার বুক চিরে রক্ত মাখি!

সেই নিশ্পাপ রক্তে আমার শরীরে লাভার উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ে।

আমি প্রাণপনে ছুটতে থাকি, বিবেকের জ্বালা আমায় তাড়িত করে,

পথিমধ্যে আমার তৃষ্ণা পায়, একবিন্দু পানির আশায় হাহাকার করি!

কিন্তু এই নিষ্ঠুর পথ চলায় আমাকে দয়া করার কেউ নেই,

মৃত্যু যেন তখন ঘাসের উপরে দোদুল্যমান শিশির বিন্দু!।

তবুও আমায় পথ চলতে হবে,

কারণ আমার পিছনেই যে ছুটে আসছে-

ক্রোধ ও আগুনের লেলিহান শিখা হাতে অজস্র ক্রুদ্ধ সংঘাত।

অথচ ইতিমধ্যেই আমার সকল শরীরি ক্ষমতা নিঃশ্বেষ হয়েছে,

আমি কেবল এক সমুদ্র অশ্রু চোখে দিগন্তপানে সাহায্যের আসায় বসে আছি;

শুনতে পাচ্ছি প্রাগৈতিহাসিক অট্টহাসি ক্রমশো এগিয়ে আসছে!

ক্লান্তিতে আমার চোখ বুজে আসে, অনুভব হয় তলিয়ে যাচ্ছি চোরাবালির নিগূঢ়ে!।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here