Home / সাহিত্য সংবাদ / বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে শত উপন্যাস প্রকাশ করবে বেহুলাবাংলা

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে শত উপন্যাস প্রকাশ করবে বেহুলাবাংলা

জাতিরপিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে শত উপন্যাস প্রকাশ করার উদ্দ্যোগ গ্রহন করেছে বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় প্রকাশনী “বেহুলাবাংলা”।

বেহুলাবাংলার প্রকাশক চন্দন চৌধুরী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রয়াণদিবসে (১৫ আগস্ট) একটি পুনঃবিবৃতে জানান,



“পাঁচশ বা হাজার বছর পর যদি পৃথিবী থাকে, বাংলাদেশ থাকে, তবে সেই ইতিহাসে একাত্তরের মু্ক্তিযুদ্ধ নিয়ে এক পৃষ্ঠা বা একটি অনু্চ্ছেদ হলেও লেখা থাকবে। আর সেখানে থাকবে একটি নাম – বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
আজ আমরা মানি বা না মানি। যারা না মানেন, তাদের উদ্দেশে একটাই কথা, পৃথিবীর মহান নেতাদের যদি আপনি স্বীকার করেন, তাহলে বঙ্গবন্ধুকে কেন স্বীকার করবেন না? আর আপনার বাবার নাম যদি আপনি উজ্জ্বল না করেন, তবে অন্য কেউ এসে সেটা উজ্জ্বল করে দেবে না। অন্যের বাবাকে বাবা ডেকে যদি কারো ভালো লাগে সেটা ভিন্ন কথা। আপনাকে তো আর বাধা দেওয়া যাবে না, ডাকতেই পারেন। তবে আমরা বিশ্বাস করি, বাঙলা ও বাঙালির ইতিহাসে বঙ্গবন্ধুর নামটি দল-মত নির্বিশেষেই উজ্জ্বল থাকবে।

অনেকে ভাবতে পাবেন, ওই ব্যাটা ওসব বলছে! ওই শালা একটা গোঁড়া আওয়ামীলীগ। যাই বলুন, আওয়ামীলীগের ভালোকে আমি ভালোই বলব, খারাপকে খারাপ। অন্তত এটুকু বলার মতো সাহস হয়তো এখনো আছে। অনেকে আবার বলতে পারেন, আওয়ামীলীগের ভালোটা দেখান? এই লেখায় সম্ভবত সেই তর্কটা আসে না।
আমরা জাতির জনককে স্বীকার করি। তাই আমার বেহুলাবাংলা প্রকাশন এই মহান নেতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁকে নিয়ে ১০০ উপন্যাস প্রকাশের উদ্যোগ নিয়েছে।
এখানে আমরা সবার অংশগ্রহণ আশা করছি (স্বাধীনতা বিরোধী ব্যতীত)। আমরা আপনাদের সবার সহযোগিতা চাই। কারণ এত বড় একটা কাজ বেহুলাবাংলার পক্ষে করা প্রায় অসম্ভব। যদিও আমরা ইতোমধ্যে ৭১-এর ৭১ উপন্যাসের মতো প্রকল্পের কাজ করেছি। তিন বছরে তিন শতাধিক বই প্রকাশ করেছি। তারপরেও এই পুরো কাজটা তুলে আনা বেহুলাবাংলার পক্ষে কঠিনতর।
১. লেখক হলে আপনি আমাদের উপন্যাস দিয়ে সহযোগিতা করতে পারেন।
২. পাঠক হলে আপনি ১০০ বইয়ের এক সেট আগাম ১০,০০০/- টাকায় কিনে সহযোগিতা করতে পারেন।
৩. আর এই বিশাল কাজে স্পন্সর আশা করছি। যে কেউ স্পন্সর হতে পারবেন। ব্যক্তি, সংগঠন, প্রতিষ্ঠান। প্রথম অবস্থায় ৫০ হাজার থেকে ১ লাখ কপি বই করতে চাই। সব বইয়ে স্পন্সরদাতাদের নাম বা প্রতিষ্ঠানের লগো ব্যবহার হবে।
আমি বিশ্বাস করি, কোনো কাজ আটকে থাকে না। আমিও এই কাজটা পূর্ণ করব। শুধু সঙ্গে চাই আপনাদের।
সবাইকে অনেক অনেক ভালোবাসা।”

বেহুলাবাংলার এই শুভ উদ্দ্যোগ বাঙলা ও বাঙালির ইতিহাস ও জাতীয়চেতনাবোধে স্বরনীয় এবং অনুপ্রেরণা যোগাবে বলে মনে করেন দেশের গুণীজন।

Hits: 62

About সাহিত্যপুরী

Check Also

কাব্যচন্দ্রিকা একাডেমি পুরষ্কার ২০২০

সাহিত্যের শুদ্ধতায় সৃজনশীল সৃষ্টি… এ স্লোগানকে ধারণ করে সুনামের সঙ্গেই ১২ বর্ষপূর্তি পদার্পণ ও সময়ের …

%d bloggers like this: