হৃদয় পরশ দেবো।। চিন্ময় মহান্তী

শনিবার, ডিসেম্বর ৯, ২০১৭ ৫:২৬ অপরাহ্ণ
Share Button

ওরা হেঁটে চলে ধেনুর পিছনে
খুরের ধূলি মেখে ,
ওরা শ্বাস লয় খোলা মাঠের
শুদ্ধ বাতাস হতে ।
ওরা পেড়ে খায় কালো পাকা জাম
খালের ধারের গাছে ,
ওরা পেড়ে খায় কচি কচি আম
মরিচ লবণ যোগে ।

সারাদিন ধরে মাঠের বাতাসে
ডাঙ্গ গুলি খেলে ,
মধ্যে মধ্যে সেইগুলি ফেলে
মার্বেল লয়ে খেলে ।
ওই যে দেখো দীঘির জলে
সাঁতরে সাঁতরে খেলে ,
পদ্ম পাতার টুপি বানিয়ে
মাথায় পরে থাকে ।
বটগাছের ওই ঝুরি ধরে ওরা
দোলনা দোলনা খেলে ,
ঝোড়োল ঝাঁপ মিশে গেছে ওদের
শিরা উপশিরা জুড়ে ।

ওরাই দেখো সুখের রাজ্যে
স্বচ্ছন্দে বিচরণ করে ,
ওরাই দেখো চিন্তা ছেড়ে
দিনাতিপাত করে ।
কুঁড়ে ঘরে দিন কেটে যায়
ছেঁড়া কাঁথায় শুয়ে ,
ভবিষ্যত ওদের ঘুমিয়ে থাকে
স্বল্প আয়ের দেশে ।

রাখাল তোমার হাসি দেখে
ঈর্ষা জাগে প্রাণে ,
অর্থে শুয়েও সুখ হয়না
শিখি তোমায় দেখে ।
রাখাল তোমার নাচ দেখে
স্বপ্ন জাগে প্রাণে ,
নাচবো আমি তোমার সাথে
মাঠের আলে আলে ।
তোমার বাঁশির সুর শুনে গো
হৃদয় নাচে তালে ,
তোমার সাথে খেলবো আমি
মাঠের ধূলি মেখে ।

তোমার সাথে আম খাবো গো
দীঘির পাড়ে বসে ,
তোমার সাথে জাম পাড়বো
খালের ধারের গাছে ।
আনন্দ সব ভাগ করে নেবো
হৃদয় পরশ দিয়ে ,
পার্থিবতে কি আর আছে
মরণ হবেই শেষে ।

Share Button