গোপাল বাবুর করোনা-ভাবনা।।সেবক বিশ্বাস

করোনা ভাইরাসের গল্প
0
ভোরে উঠি না এখন। সারাদিন দীর্ঘ সময় কিভাবে ঘরে বসে বসে কাটাবো? তাই বেশিরভাগ সময় ঘুমিয়েই সময় কাটাই। আজ এগারোটার পরে ঘুম থেকে উঠলাম। গিন্নির ঝাড়িও খেয়েছি- "কুম্ভকর্ণ,সকালে উঠে দুটো ভাত তো রান্না করতে পারো"।বরাবরের মতো চুপচাপ চলে যাই ওয়াশরুমে।বের হতেই দেখি,...

বাস্তব জীবনের রহস্যময় গল্প

0
তিন আত্মা ।। মুহাম্মাদ সারোওয়ারে জুলফিকার         ছাত্র জীবনে টানতেন ডার্বি, হলিউড। এখন টানেন ব্যান্সন, ব্ল্যাক মাঝে মাঝে ইন্ডিয়া থেকে আনানো প্যারিসও টানেন। বলছিলাম সরকারী চাকুরীজীবী মাহিন সাহেবের কথা। একটার পর একটা সিগারেট টেনেই যাচ্ছেন। ঘুষ খাওয়া, সিগারেট টানা ছাড়াও তার আরও একটি নেশা...

মেলা।। সঞ্জয় চ্যাটার্জী।। ঈদ সংখ্যা ২০১৮

0
অনেকদিন মেলা দেখা হয় নি। সেদিন চোখে পড়ল পার্শ্ববর্তী স্টেশনে মেলা বসেছে। উৎসুক হয়ে গেলাম মেলা দেখতে। গিয়ে দেখি ভিড় যেন উপছে পড়ছে; গ্রামীণ কারুকাজ, বাচ্চাদের রকমারি খেলনা, বেতের ঝুড়ি, মোড়া, আরামকেদারা, নিত্য ব্যবহার্য সামগ্রী, হাতা- খুন্তি- হাঁড়ি - কড়াই - ছুরি-কাঁচি- বঁটি, ইত্যাদি...

ঋণ।। চিন্ময় মহান্তী

0
পূর্ব আকাশে সূর্য সবেমাত্র দৃশ্যমান হইয়াছে , তাহাকে কর্মকারের হাপরের হাওয়ায় গনগনে আঁচে রাঙা লৌহ চক্রের ন্যায় দেখাইতেছে। স্রোতস্বিনীর শীতল জলে স্নান সমাপনান্তের হাওয়া আসিয়া , গ্রাম্য সকল জীবের অস্থি কাঁপুনির উৎপাত বাড়াইয়া দিয়াছে । অদূরে কয়েকজন বৃদ্ধ শুষ্ক কাষ্ঠ জ্বালাইয়া, বৃত্তাকারে বসিয়া দেহগুলি...

ছোট গল্প: ঝড়।। সেবক বিশ্বাস

0
সময়চক্রে মানুষের জীবন কতটা অসহায় হতে পারে? ভাগ্যের পরিহাস কতটা নির্মম !। তারই প্রতিচ্ছবিতে সেবক বিশ্বাসের রচিত ছোট গল্প ঝড় গোধূলির শেষ পাখিটার উড়ে যাওয়া দেখতে দেখতে ভগ্নদেহধারী কঙ্কালসার শম্ভুনাথ কাঁচা বাঁশের নতুন বেড়ার ধারে বেলুম্বা বৃক্ষের নীচে বিষণ্ণ বদনে বসে পড়ে। অন্ধকারে ডুবে যায়...

অসহায়ত্ব।। মাহবুবা আক্তার স্মৃতি

0
উঠানে অস্থিরভাবে পায়চারি করছে হোসেন মিয়া। ভিতর থেকে সাফিয়ার কান্না ভেসে আসছে কিন্তু সে আরেকটি কান্না শোনার জন্য মরিয়া হয়ে আছে, কিছুটা ভয়েও তাকে পেয়ে বসেছে। যদি তার ইচ্ছেটা পূরন নাহয়, যদি দেখে..!। কিছুক্ষণ পরেই বাচ্চার চিৎকার শোনা গেল। দাঈ এসে জানালো, -হোসেন মিয়া, তোর...

এক বিকেলের মেয়ে

0
 তোফায়েল হোসেন একটা অজানা প্রত্যাশা নিয়ে দীর্ঘ দশ বছর ধরে একটা নির্দিষ্ট পত্রিকায় নিয়মিত চোখ বুলিয়ে যাচ্ছি। যার খুজে আমার এই অপেক্ষা হয়তো সে আর কোনোদিন আমাকে ডাকবে না। তবুও একটা মরীচিকায় ডুবে আমার এই পথচলা। অভ্যাসের দাস হিসেবে পত্রিকাটায় যথারীতি চোখ বুলাচ্ছি। মধ্য পৃষ্ঠায় গিয়েই...

চিঠি।। সেবক বিশ্বাস

0
 ­              মধ্যরাত্রির নিস্তব্ধতা যখন রুপোর কাঠির ছোঁয়ায় পৃথিবীকে ঘুম পাড়িয়ে রেখেছে, জোনাকির মতো মিটমিট জ্বলা স্মৃতিকণাকে স্পর্শ করার জন্যে সময়ের মতো নিদ্রাহীন নিশিজাগা শ্রীশ সহসা মাকড়সার সুরক্ষায় থাকা ভুলে যাওয়া চিঠির ব্যাগ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। প্রতিটি চিঠির...

হাত বাড়ালেই জীবন

0
মুনমুন সরকার দিনের বেলায় এই শহরটা বিষাদে ভরে ওঠে। কারও সময় নেই। সবাই চলে যাচ্ছে নিজের গতি নিয়ে। পেট তো ভরাতেই হবে। অথচ প্রতিদিন সূর্য যখন আত্মহত্যা করে তখন শহর হয়ে ওঠে মায়াবী। প্রাসাদের আলোর উল্টো দিকে ঢাকা পরে যায় বস্তি আর আবর্জনার স্তূপ। শহর নিজের...

ডাকিনী নদী

0
পিয়ালী জানা নদী বরাবরই টানে আমাকে। এক অদ্ভুত কারণেই ডাকে। ডাকে কারণ সে কখনো মরে না। গরমে বুড়িয়ে যায়, বর্ষায় আবার যুবতীর ভরাট উচ্ছলতা ধারণ করে। অনেক নদীকেই মন ঝুলিতে ভরেছি । আবারো বেরোলাম নদী শিকারে। তবে এবারের নদী যে আমাকেই শিকার করবে ঘুণাক্ষরেও টের...

বিপন্ন ধরণী

0
হিরন্ময় রায় বাইরে প্রচন্ড বৃষ্টি হচ্ছে । এই সময় বৃষ্টিতে ভিজতে পারলে মন্দ হতো না কিন্তু বাইরে যাওয়া নিষেধ । বাইরে গেলে দিদি, মায়ের এক গাদা কথা শুনতে হবে । কি আর করার ঘরে বসেই কাটাতে হবে । বাইরে বস্তির ছোট ছোট ছেলেরা বৃষ্টিতে ভিজছে...

চাকা

0
চাকা নাসরিন আক্তার অনেকগুলো টাকা খরচ করে রমিজ মিঞা তার পুরানো রিক্সায় নতুন ব্যাটরি লাগিয়েছে। রিক্সার বাইরে  কোন বদল নেই, শুধু ভেতরে ভেতরে অভিজাত হয়ে উঠেছে। সমাজের নিম্নশ্রেণীর ব্যাটারিহীন রিক্সাগুলো থেকে তার মর্যাদা এখন অনেক বেশি। রমিজ নতুন রূপে পুরোনো রিক্সার গায়ে আলতো আদরের একটা ধাক্কা...

নাইন্টিন ফাইভ টু ওয়ান ইলেভেন 

0
সেবক বিশ্বাস অকস্মাৎ দরজা খোলার ক্যাচক্যাচ আওয়াজে নাসিকাগর্জিত ঘুমটা ভেঙ্গে যায় গয়েশ ঘটকের। বদ্ধ দরজা কিভাবে খুলে গেল ভাবতেই তার মনে হলো,কে যেন তাকে টানছে কোমরে দড়ি বেঁধে। মাঝপথে সুখস্বপ্নের শিরদাঁড়াটা মটমট করায় শিরঃপীড়ার প্রচণ্ডতায় তিনি ক্রোধে চিৎকার করে উঠলেন, - কোন শালারে? কোনো উত্তর নেই। শুধু...

Hits: 0